অনুপ্রাণন, শিল্প-সাহিত্যের অন্তর্জাল এ আপনাকে স্বাগতম!
জুলাই ১৭, ২০২৪
২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জুলাই ১৭, ২০২৪
২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সম্পাদকীয় -
শিল্প-সাহিত্যের অন্তর্জাল, অনুপ্রাণন – ৪র্থ সংখ্যা

অনুপ্রাণন অন্তর্জাল- ৪র্থ সংখ্যা- সম্পাদকীয়

দীর্ঘ ৪ মাসের বিরতির পর প্রকাশিত হলো অনুপ্রাণন অন্তর্জালের ৪র্থ সংখ্যা। সামনে ঈদ-উল-ফিতরের ছুটিকে সামনে রেখা এই সংখ্যাটি প্রকাশিত হচ্ছে। আশা করি  ঈদের ছুটিতে অনুপ্রাণন অন্তর্জাল ৪র্থ সংখ্যার লেখাগুলো আপনার ছুটির দিনগুলো ভরিয়ে তুলবে। সম্পূর্ণ নতুন প্রায় ৮০ টি লেখা নিয়ে আমরা অন্তর্জালে এবারের এই সংখ্যাটি সাজিয়েছি। শ্রদ্ধাস্মরণ বিভাগে বিশেষ ভাবে সংযুক্ত হয়েছে সদ্যপ্রয়াত শিশু-সাহিত্যিক আলী ইমাম এবং বিশিষ্ট গায়ক ও সঙ্গীতজ্ঞ স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে বিশেষ নিবন্ধ। আরো রয়েছে তরুণ লেখকদের রচিত একগুচ্ছ কবিতা ও ছোটগল্প। যুক্ত হয়েছে দুটি ধারাবাহিক উপন্যাস ও একটি প্রবন্ধ, যে উপন্যাস দুটো ইতোমধ্যেই পাঠক মহলে সমাদৃত হয়েছে। কলঙ্কিনী রাধা নামে ধারাবাহিক প্রবন্ধগুলোতে গর্ভপাত নিয়ে ভুক্তভোগীদের অনুভূতির বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা সকল শ্রেণির পাঠকেরই মন ছুঁয়ে গেছে।

এই সংখ্যাটিতে অনুপ্রাণন প্রকাশন থেকে প্রকাশিত নতুন বইগুলো নিয়ে লেখা রিভিউগুলো প্রকাশিত হয়েছে। এই রিভিউগুলোর মধ্য দিয়ে অনুপ্রাণন প্রকাশন থেকে প্রকাশিত বইগুলো সম্পর্কে পাঠকেরা পরিচিত হয়ে ওঠার সুযোগ পেতে পারেন।

পাঠকদের আর একটা খবর দিয়ে যাই। শিল্প-সাহিত্যের ত্রৈমাসিক গতবছর অনুপ্রাণনের একাদশ বর্ষের চারটি সংখ্যা বাংলাদেশের ১০০ জন কবি ও তাঁদের কবিতা নিয়ে আলোচনা সঙ্কলিত করে সফলভাবে ৪টি সংখ্যা প্রকাশের পর অনুপ্রাণন ত্রৈমাসিকের দ্বাদশ বর্ষে এসে আমরা বাংলাদেশের ১০০ গল্পকার নির্বাচিত করেছি। যাদের গল্প-পাঠ ও আলোচনা চলতি দ্বাদশ বর্ষের ৪টি সংখ্যায় সঙ্কলিত করার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। এই কাজটি সফলভাবে সম্পন্ন করার কাজে অনুপ্রাণন আপনাদের সবার সহযোগিতা কামনা করছে।

গত এক বছরে অনুপ্রাণনের অন্তর্জাল ভিত্তিক প্রকাশিত সংখ্যাগুলোর মধ্য দিয়ে অনুপ্রাণন অন্তর্জালকে ঘিরে ইতোমধ্যেই একটি লেখক গোষ্ঠী গড়ে উঠেছে। সাথে সাথে গড়ে ওঠা একটি পাঠক গোষ্ঠী ক্রমশ আমাদেরকে তাদের চাহিদাগুলোর কথা জানান দিচ্ছেন। তাঁদের চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে নুপ্রাণন অন্তর্জালের লেখকেরা নতুন সৃজনশীল ও মননশীল সাহিত্য নিয়ে অন্তর্জালের পাতা সফলভাবে পূর্ণ করে চলেছেন।

সংখ্যাটির প্রস্তুতির এই দিনগুলোতে ১৪২৯ বর্ষটি শেষ হয়ে আমরা ১৪৩০ নতুন বর্ষে পদার্পণ করেছি। আশা করছি নতুন বর্ষে আমরা নতুনভাবে আরো নতুন নতুন লেখা ও লেখকদের নিয়ে আপনাদের সামনে উপস্থিত হতে পারবো।

আপনাদেরকে নতুন বর্ষের শুভেচ্ছার পাশাপাশি ঈদ-উল-ফিতরের আগাম শুভেচ্ছা জানাই। আপনাদের সবার মঙ্গল হোক।

Print Friendly, PDF & Email

Read Previous

জলছবির প্রতিচ্ছবি

Read Next

শিল্প-সাহিত্যের অন্তর্জাল, অনুপ্রাণন, ৪র্থ সংখ্যা (এপ্রিল-২০২৩)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *